অনার্সে আবেদন ও ভর্তি সংক্রান্ত সকল প্রশ্নের উত্তর

অনার্স ভর্তি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্সে ভর্তির আবেদন সংক্রান্ত নানা প্রশ্ন ও দ্বিধাদ্বন্দ্ব প্রায় সবার মনেই কাজ করে। তাই চলুন কথা না বাড়িয়ে বিষয়গুলো পরিষ্কার হওয়া যাক।

১) অনার্সের ভর্তির আবেদন ফর্ম এ ভুল হলে কি করবো?

আবেদন ফর্ম এ ভুল হলে বা কোনো কিছু সংশোধন করতে হলে ফরমটি একবার cancel করে পুনরায় আবেদন করা যাবে। কলেজ কর্তৃক আবেদন ফরম নিশ্চিত হলে তা আর Cancel করা যাবে না।  মনে রাখবেন শুধু ১ বার ক্যানসেল করতে পারবেন 

২) অনার্সের ভর্তি ফর্মের সাথে কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হবে?

অনলাইনে আবেদন করার পর আপনাকে যে প্রিন্ট করা আবেদন ফর্মটি দেওয়া হবে তার নিদৃষ্ট স্থানে আপনার সাক্ষর ও আপনার অবিভাবকের সাক্ষর দিতে হবে। এরপর, আবেদন ফর্মের সঙ্গে আপনার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার সত্যায়িত নম্বরপত্র, রেজিস্ট্রেশন কার্ডের সত্যায়িত ফটোকপি ও আবেদন ফি বাবদ ২৫০/- টাকা সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জমা দিতে হবে৷ (কাগজপত্র আপনার উচ্চ মাধ্যমিক এর কলেজ থেকে সত্যায়িত করে নিতে পারেন।)

৩) ভর্তির জন্য নির্বাচিত হয়েছি কি না জানবো কিভাবে?

  • কলেজ কর্তৃপক্ষ যে সকল আবেদন অনলাইনে নিশ্চয়ন করবে সে সকল শিক্ষার্থীদের ফোনে  SMS এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। প্রাথমিক আবেদন নিশ্চয়নের SMS পেলে বুঝতে হবে আপনি ভর্তির জন্য নির্বাচিত হয়েছেন। এটাকে প্রথম মেধা তালিকার রেজাল্ট বলা হয়।
  • যদি আপনার প্রথম মেধাতালিকায় নিশ্চয়ন না হওয়ার SMS আসে, তাহলে দ্বিতীয় মেধাতালিকার রেজাল্ট এর জন্য অপেক্ষা করুন। দ্বিতীয় মেধা তালিকার জন্য একই ভাবে মেসেজ আসবে।(প্রথম মেধাতালিকার আসন খালি থাকা সাপেক্ষে ও মাইগ্রেসন)
  • আর কোনো প্রার্থী তার মোবাইল ফোনে যদি কোনো SMSই  না পায় তাহলে বুঝতে হবে আবেদন ফরমটি কলেজ কর্তৃক নিশ্চয়ন করা হয় নি । এক্ষেত্রে প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট কলেজে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যোগাযোগ করতে হবে। 


৪) ফলাফল প্রদানের ধাপসমূহ:

মেধাতালিকায় যার জিপিএ বেশি থাকবে সেই সুযোগ পাবে। ফলাফল কয়েকটি ধাপে প্রকাশিত হবে। (নিচে ধাপগুলোর উপরে ক্লিক করে বিস্তারিত জেনে নিন) যেমনঃ


৫) রেজাল্ট জানার নিয়মসমূহ:

i) SMS এর মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে।

ii)  আপনি নিজে থেকে SMS করে জেনে নিতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে
NU<space>ATHN<space>Roll নো লিখে পাঠাতে হবে ১৬২২২ নম্বরে।

এখানে, NU= National University
ATHN= Admission Test Honours
Admission Roll No= অনলাইনে ভর্তির আবেদন ফরমে প্রাপ্ত রোল নম্বর।

iii) এছাড়া অনলাইনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির ফলাফল জানতে নিচের লিংকে গিয়ে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফর্ম এ প্রাপ্ত রোল নম্বর ও পিন নম্বর টাইপ করে লগিন করুন।
..
অফিসিয়াল সাইট থেকে ফলাফল দেখতে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন


৬) ভর্তি পদ্ধতিঃ

ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই SSC ও HSC এর রেজাল্ট এর ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করানো হবে। প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধাতালিকার ভিত্তিতে এবং শিক্ষার্থীদের সাবজেক্ট পছন্দদের ক্রম অনুযায়ী ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির নির্ধারিত হবে।

একই প্রতিষ্ঠান/কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হলে সেক্ষেওে এ সকল আবেদনকারীর পর্যায়ক্রমে

I) ৪র্থ বিষয়সহ SSC ও HSC পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এর যথাক্রমে ৪০% ও ৬০%

ii) প্রয়োজন হলে SSC ও HSC পরীক্ষার মোট প্রাপ্ত নম্বরের যথাক্রমে ৪০% ও ৬০% বিবেচিত হবে 

iii) এর পরেও যদি দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হয়, তা হলে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

আরো পড়ুন: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তির ১ম ও ২য় মেধাতালিকার ভর্তি নির্দেশনা

৭) কিছু পরামর্শ:

যাদের জিপিএ কম, ভালো বা জনপ্রিয় কলেজ গুলোতে ভালো সাবজেক্ট পাওয়া না পাওয়া নিয়ে সন্দেহ করছেন। তারা অপেক্ষাকৃত কম জনপ্রিয় কলেজে গুলাতে আবেদন করতে পারেন। কারণ এগুলোতে প্রতিযোগিতা কম।
আর যাদের জিপিএ একবারই কম। তারা বেশি জনপ্রিয় কলেজে আবেদন করলে, প্রথম মেধাতালিকা বা দ্বিতীয়  মেধাতালিকাতে সুযোগ নাও হতে পারে। ফলে রিলিজ স্লিপ নিয়ে অন্য কলেজে যেতে হতে পারে। ততক্ষনে হয়তো সেই কলেজ গুলতেও ভালো সাবজেক্ট এর আসন গুলো পূরণ হয়ে গেছে।
তাই আবেদন করার আগে, কোনো বড় ভাই এর পরামর্শ নিন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি সংক্রান্ত জরুরী লিংকসমূহঃ

ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ডাউনলোড

ভর্তি নির্দেশিকা ডাউনলোড


কোনো প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।



শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট